1. admin@banglabahon.com : Md Sohel Reza :
স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সামনে বড় বিপদ: ডিজি
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন

স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সামনে বড় বিপদ: ডিজি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশ: রবিবার, ১৪ মার্চ, ২০২১

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সামনের দিনে দেশ বড় ধরনের বিপদে পড়তে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মো. খুরশীদ আলম।

তিনি বলেন, গেল দুই মাস আমরা স্বস্তিতে ছিলাম, তাই এখন আমরা কোনো কিছু মানছি না। সামনের দিকে আমরা আরও বড় বিপদে পড়তে যাচ্ছি, যদি আমরা স্বাস্থ্যবিধি না মানি।

রবিবার রাজধানীর শ্যামলীতে টিবি হাসপাতালে ওয়ান স্টপ টিবি সেন্টারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

বর্তমানে আবার আইসিইউ’র চাহিদা বাড়ছে জানিয়ে স্বাস্থ্যের মহাপরিচালক বলেন, গত কয়েকদিন ধরে আইসিইউ বেড পেতে হিমশিম খেতে হচ্ছে মানুষকে। আমিও বেশ কিছু ফোন পেয়েছি। এখন তরুণরা আক্রান্ত হচ্ছে, আক্রান্তদের অনেককেই আইসিইউতে ভর্তি করা লাগছে।

খুরশীদ আলম বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়টি জোরদার করতে এরইমধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। দেশের সব হাসপাতালকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে; সারা দেশে আইসিইউগুলো প্রস্তুত রাখতে বলা হয়েছে।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় দেশের সমস্ত হাসপাতালকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইতোমধ্যে প্রশাসনসহ সিভিল সার্জন অফিসগুলোতে চিঠি পাঠানো হয়েছে। সারা দেশে আইসিইউগুলো প্রস্তুত রাখতে বলা হয়েছে। আজ বিকেলে সিভিল সার্জনদের সঙ্গে মিটিং আছে, সেখানে নতুন নির্দেশনার বিষয়টি তোলা হবে।

শিগগিরই করোনা টিকার তৃতীয় চালান আসছে জানিয়ে খুরশিদ আলম বলেন, গতরাতেও বেক্সিমকো গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমানের সঙ্গে কথা হয়েছে। শিগগিরই টিকার তৃতীয় চালান দেশে আসবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

স্বাস্থ্যবিধি মানার ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি আরও বলেন, টিকা নেওয়া মানে স্বাস্থ্যবিধি না মানা নয়। কারণ, প্রথম ডোজ নেওয়ার পর প্রতিরোধ ক্ষমতা সেভাবে তৈরি হয় না। আবার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পরও প্রতিরোধ ক্ষমতা কতদিন থাকবে তাও কেউ জানেন না। তাই স্বাস্থ্যবিধি মানার বিকল্প নেই।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদফতর বলছে, নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধির ধারায় গত এক সপ্তাহে দেশে নতুন রোগী শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে ৬৭ দশমিক ২৭ শতাংশ। এ সময়ে মৃত্যু বেড়েছে ৪৯ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির পরিচালক অধ্যাপক ডা. সামিউল ইসলাম, আইসিডিডিআর,বির শর্ট স্টে ইউনিটের প্রধান ডাক্তার আজহারুল ইসলাম খান, শ্যামলী টিবি হাসপাতালের ডেপুটি ডিরেক্টর ডা. মো. আবু রায়হান প্রমুখ।

শেয়ার করতে চাইলে...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ...
© বাংলা বাহন সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২৪।
ডিজাইন ও আইটি সাপোর্ট: বাংলা বাহন
error: Content is protected !!