1. admin@banglabahon.com : Md. Sohel Reza :
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৯:২৭ পূর্বাহ্ন
আপনিও লিখুন:
‘বাংলা বাহন’ নিউজপোর্টালে আপনাদের মতামত, পরামর্শ, সমসাময়িক কোন বিষয়ে লেখা, বিশ্লেষণ, তথ্য, ছবি ও ভিডিও পাঠাতে পারেন banglabahonbd@gmail.com ঠিকানায়।

নেতাদের মুক্তির দাবি হেফাজত মহাসচিবের

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা
  • প্রকাশ: সোমবার, ১২ এপ্রিল, ২০২১

গতরাত থেকে নিখোঁজ হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদীর সঠিক সন্ধান এবং কেন্দ্রীয় সহঅর্থসম্পাদক মুফতি ইলিয়াস হামিদিসহ আটক হেফাজত নেতৃবৃন্দের নিঃশর্ত মুক্তি চেয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব, ঢাকা খিলগাঁও মাখযানুল উলুম মাদ্রাসার মহাপরিচালক ও আন্তর্জাতিক মজলিসে তাহাফফুজে খতমে নবুওয়াত বাংলাদেশের আমির আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদি।

সোমবার সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, রোববার হাটহাজারীতে অনুষ্ঠিত হেফাজতে ইসলামের বৈঠক শেষে ঢাকায় ফেরার পথে নারায়ণগঞ্জের মদনপুর থেকে হেফাজতের কেন্দ্রীয় সহঅর্থসম্পাদক ও ঢাকা মহানগরের সহসভাপতি মুফতি ইলিয়াস হামিদিকে আটক করেছে র্যা ব। এবং একই বৈঠক থেকে চট্টগ্রাম যাওয়ার পথে আশ্চর্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়েছেন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, গতরাত থেকে এখন পর্যন্ত তার কোনো খবর পায়নি পরিবার। তার মোবাইল-ফোন এবং তার সঙ্গে থাকা ব্যক্তির মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকেও তাকে গ্রেফতারের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। মাওলানা ইসলামাবাদী কি গ্রেফতার হয়েছেন নাকি তাকে গুম করা হয়েছে তা নিয়ে আমরা চিন্তিত।

হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দিয়ে হেফাজত নেতৃবৃন্দকে এভাবে গ্রেফতার ও গুম করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেফতার হওয়া সব নেতৃবৃন্দকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে বলে বিবৃতিতে তিনি দাবি করেন।

হেফাজত মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম আরও বলেন, আসন্ন পবিত্র রমজান মাস। রহমত, বরকত ও নাজাতের মাস। এ মাস সামনে রেখে ওলামায়ে কেরামকে গ্রেফতার ও হয়রানি কোনোভাবে সহ্য করা যায় না। দেশের তৌহিদি জনতা এসব সহ্য করবে না। নিরীহ নিরস্ত্র মানুষের ওপর হামলা মামলা বন্ধ না হলে দেশের সর্বস্তরের জনগণ এই জুলুমের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে বাধ্য হবে।

তিনি আরও বলেন, একজন নাগরিকের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা রাষ্ট্র, সরকার ও প্রশাসনের দায়িত্ব। রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা পাওয়া একজন নাগরিকের নৈতিক অধিকার। প্রায় ১২ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে মাওলানা ইসলামাবাদী নিখোঁজ থাকার ঘটনা রাষ্ট্র কর্তৃক একজন নাগরিকের নিরাপত্তা অধিকারকে চরমভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।

হেফাজতের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী নিখোঁজের দায়ভার রাষ্ট্র, সরকার ও প্রশাসনকেই নিতে হবে।

আল্লামা নুরুল ইসলাম জিহাদি বলেন, আমার জানামতে মুফতি ইলিয়াস হামিদির নামে কোনো মামলা নেই। রাষ্ট্র কিংবা সরকারবিরোধী কোনো কর্মকাণ্ডের সঙ্গেও তিনি জড়িত নন।

এর পরও যাতায়াত পথে গাড়ি আটকে তাকে কেন গ্রেফতার করা হলো? কী অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হলো তা অবশ্যই আমাদের জানাতে হবে। সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ ছাড়া এভাবে রাস্তাঘাটে আটক করে পরে সাজানো মামলায় গ্রেফতার দেখানো হলে তা মেনে নেওয়া হবে না।

হেফাজতে ইসলাম একটি সুশৃঙ্খল দল। হেফাজতের সব আন্দোলন শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খল। হেফাজতে ইসলামের কোনো নেতাকর্মী হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ ইত্যাদি কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত নয়। ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ইত্যাদির দায়ভার হেফাজতের ওপর দিয়ে নেতৃবৃন্দের নামে মিথ্যা আর হয়রানি বরদাশত করা হবে না।

রাতে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর এভাবে হয়রানি ও মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার করা হলে আমরা নিশ্চুপ বসে থাকব না। এভাবে চলতে থাকলে পরামর্শক্রমে হেফাজতে ইসলাম কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বাধ্য হবে বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ...
© বাংলা বাহন সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২০-২০২১।
ডিজাইন ও আইটি সাপোর্ট: বাংলা বাহন