1. admin@banglabahon.com : Md Sohel Reza :
ড্রোন দিয়ে নজরদারি চালাচ্ছে পুলিশ
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৫৮ অপরাহ্ন

ড্রোন দিয়ে নজরদারি চালাচ্ছে পুলিশ

বাংলা বাহন ডেস্ক:
  • প্রকাশ: রবিবার, ১২ এপ্রিল, ২০২০

‘ড্রোন উড়ছে, এটি খেলা কিংবা গেমস নয়। এটি আপনাকে দেখছে, আমাদের দেখাচ্ছে। আপনারা যারা এখনো সরকারি নির্দেশ অমান্য করে রাস্তায়, অলিগলিতে অহেতুক আড্ডা দিচ্ছেন, এই সংক্রমিত রোগকে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন, তাদের জন্য শুরু করেছি আইনগত ব্যবস্থা। আপনারা যারা ঘরে থাকতে চাইছেন না তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অ্যাভিডেন্স কালেক্ট চলছে। ইতিমধ্যে আপনাদের অনেকের ছবি ও ভিডিও আমাদের হাতে’।

উপরোক্ত কথাগুলো একটি ভিডিও বার্তায় জানাচ্ছিলেন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন।

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে সরকার জনগণকে ঘরে থাকার নির্দেশনা দিয়ে বিভিন্ন প্রচার এবং ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছে। তবে এখনো গণজমায়েতসহ পাড়ার অলিগলির আড্ডাবাজি দেখা যাচ্ছে। বন্ধ হয়নি সড়কে মানুষের জটলাও।

সিএমপির পক্ষ থেকে বলা হয়, জনগণের বাসায় থাকা নিশ্চিত করতে নিত্যপ্রয়োজনীয় বাজার, হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়া, বিভিন্ন সহায়তায় পাশে দাঁড়াচ্ছে পুলিশ। তারপরও চট্টগ্রামে সামাজিক দূরত্ব মানছেন না অনেকে। আর পাড়া-মহল্লায় আড্ডা দিচ্ছে এবং ঘোরাঘুরি করছে কিশোরও এক শ্রেণির উৎসুক মানুষ।

পুলিশ জানায়, তাই নগরীর আড্ডা ও অহেতুক ঘোরাঘুরি থামাতে কোতোয়ালী থানার ওসি নিয়েছেন ব্যতিক্রমী উদ্যোগ ‘ড্রোন পরিচালনা’।

এ বিষয়ে ওসি মোহাম্মদ মহসীন দেশ  বলেন, আমরা তিনটি ড্রোনের মাধ্যমে আড্ডা বন্ধ এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতে মানুষ যাতে ভালোভাবে চলাফেরা করে এসব নিশ্চিত করব।

তিনি বলেন, ইতিমধ্যে রবিবার থেকে ড্রোন আকাশে উড়িয়েছি। নগরীর পাথরঘাটা, ফিরিঙ্গীবাজার, আলকরণ, কাজির দেউড়ী, ব্যাটারি গলি, হাজারি লেইন, জামাল খান, চেরাগী পাহাড়সহ কোতোয়ালী থানার অধীনে বিভিন্ন এলাকায় যারা সরকারি আদেশ নির্দেশ অমান্য করছে তাদের ছবি ও ভিডিও ধারণ করেছি।

তিনি বলেন, আজ (রবিবার) কোনো মামলা হয়নি কিন্তু আগামীকাল (সোমবার) থেকে যারা অযথা জটলা করবে, রাস্তার মোড়ে চায়ের দোকানে আড্ডা দেবে, অপ্রয়োজনে বাসা থেকে বের হবে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হবে।

ওসি মহসীন আরো বলেন, গত দু’দিন ধরে যেসব কিশোরদের সড়কে অযথা ঘোরাঘুরি এবং আড্ডা দিতে দেখেছি তাদের থানায় এনে অভিভাবকদের জিম্মায় ছেড়ে দিয়েছি। তাদের বুঝিয়েছি যেন বের না হয় বাসা থেকে। অভিভাবকদের বলেছি সন্তানদের এ সময় বের হতে না দিতে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরো বলেন, আমরা বারবার মাইকিং করছি, থানার এসআই-এএসআই গিয়ে পাড়ায় পাড়ায় প্রচার করছে। করোনা সংক্রমণ এড়াতে যেন বাসা থেকে বের না হয়, বিভিন্নভাবে সচেতন করছে পুলিশ।

পাথরঘাটার বাসিন্দা অভিজিৎ দস্তিদার বলেন, এমন উদ্যোগ প্রশংসনীয়। যারা এখন হিরোগিরি দেখাতে এলাকায় ঘুরছে তাদের বিরুদ্ধে এই অ্যাকশনটা চমৎকার। প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যাবে পুলিশ এটা তো সুন্দর উদ্যোগ।

গূর্খা ডাক্তার লেইনের বাসিন্দা ব্যাংক কর্মকর্তা বাপ্পা ভট্টাচার্য বলেন, গলির ভেতরে জটলা পাকাচ্ছে অনেকে পুলিশ আসলে সরে যায় কিন্তু তারা চলে গেলে আবার একই। এখন ড্রোন দিয়ে এসব আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে প্রমাণসহ যথাযথ ব্যবস্থা। চমৎকার ব্যবস্থা।

কোতোয়ালীর ওসি বলেন, করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে মানুষকে বাসায় থাকতে হবে। যে কোনো প্রয়োজনে পুলিশ আছে। আমরা ২৪ ঘণ্টাই জনগণের সেবায় নিয়োজিত।

এর আগে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিকে তদারকি করতে অ্যাপ চালু করে সিএমপি।

তারা জানায়, অ্যাপটিতে নোটিফিকেশন ব্যবস্থা আছে। যখন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তি তাকে নির্দিষ্ট করে দেওয়া গণ্ডির বাইরে যাবেন, তখন ওই ব্যক্তি ও ওয়েবভিত্তিক অ্যাডমিন প্যানেলের কাছে সতর্কতামূলক নোটিফিকেশন চলে যাবে। একই সময়ে অ্যাডমিন প্যানেল সংশ্লিষ্ট পুলিশ স্টেশনের মনিটরিং ইউনিটকে তাৎক্ষণিক এ তথ্য দেবে। যার মাধ্যমে পুলিশ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

সূত্র: দেশ রুপান্তর

শেয়ার করতে চাইলে...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ...
© বাংলা বাহন সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২৩।
ডিজাইন ও আইটি সাপোর্ট: বাংলা বাহন
error: Content is protected !!