1. admin@banglabahon.com : Md. Sohel Reza :
জিয়ার কবর সরানো হবে: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী : বাংলা বাহন
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫৬ পূর্বাহ্ন
আপনিও লিখুন:
‘বাংলা বাহন’ নিউজপোর্টালে আপনাদের মতামত, পরামর্শ, সমসাময়িক কোন বিষয়ে লেখা, বিশ্লেষণ, তথ্য, ছবি ও ভিডিও পাঠাতে পারেন info@banglabahon.com ঠিকানায়।

জিয়ার কবর সরানো হবে: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশ: সোমবার, ৩০ আগস্ট, ২০২১
AKM_Mozammel

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যান থেকে সরানো হবে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবর।

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ হত্যা রোধে করণীয়’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার বিষয়ে ‘দালিলিক প্রমাণ’ থাকায় জিয়ার মুক্তিযুদ্ধের খেতাবও বাতিল করা হবে।

তিনি বলেন, জাতীয় সংসদ ভবন এলাকায় নকশাবহির্ভূত শুধু জিয়ার কবরই নই, আরো যত কবর আছে বা অন্যকিছু অবৈধ স্থাপনা, সব অপসারণ করতে হবে। সংসদের মূল নকশার বাইরে কোনো কিছু থাকা উচিৎ নয়। তা আইনবহির্ভূত।

মন্ত্রী বলেন, কবর ঢাকায় থাকতে হবে এমন কোনো কথা নেই। জিয়ার লাশ কোথাও যদি থেকে থাকে, সেখানে গিয়ে তাকে সম্মান জানাতে পারে তার অনুসারীরা।

তিনি বলেন, চন্দ্রিমা উদ্যানের কবরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়ার ‘লাশ নেই’। জিয়াউর রহমানের লাশ পাওয়া যায়নি। সেই কফিনের মধ্যে কী ছিল, মানুষ ছিল না অন্য কিছু ছিল সেটা আল্লাহ মালুম। একটা কাঠের বাক্স সেখানে দাফন করেছে। সেই কবরে কোনো কিছু থেকে থাকে, তার ডিএনএ টেস্ট করে প্রমাণ করুন। যদি প্রমাণ হয় (জিয়ার লাশ রয়েছে), জাতির কাছে নাকে খত দিয়ে ক্ষমা চাইব।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, যদি কেউ জাতির পিতাকে হত্যা করে, আর তাকে শ্রেষ্ঠ সম্মান দেব, এমন সন্তান তো আমি হতে পারি না। তাই বঙ্গবন্ধুর কোনো হত্যাকারীরই খেতাব থাকতে পারে না।

বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের খেতাব বাতিল করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান যে জড়িত ছিল সারকামস্টেনশিয়াল এভিডেন্স তো আছেই। দালিলিক প্রমাণ আছে সেটাও বলব। এখনও করিনি, অপেক্ষায় আছি প্রমাণ সাপেক্ষে।

মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম কেন্দ্রীয় সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের যৌথ আয়োজনে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, মুক্তিযুদ্ধের সাব সেক্টর কমান্ডার মাহবুব উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রমও বক্তব্য দেন।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ...
© বাংলা বাহন সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২১।
ডিজাইন ও আইটি সাপোর্ট: বাংলা বাহন