1. admin@banglabahon.com : Md. Sohel Reza :
গোলরক্ষকের বীরত্বে ফাইনালে আর্জেন্টিনা | বাংলা বাহন
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ০৮:২০ পূর্বাহ্ন
আপনিও লিখুন:
‘বাংলা বাহন’ নিউজপোর্টালে আপনাদের মতামত, পরামর্শ, সমসাময়িক কোন বিষয়ে লেখা, বিশ্লেষণ, তথ্য, ছবি ও ভিডিও পাঠাতে পারেন info@banglabahon.com ঠিকানায়।

গোলরক্ষকের বীরত্বে ফাইনালে আর্জেন্টিনা

স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশ: বুধবার, ৭ জুলাই, ২০২১
Argentina_Goalkeeper
আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেস। ছবি: গুগল

গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেসের বীরত্বে কোপা আমেরিকার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে আর্জেন্টিনা। টাইব্রেকারে কলম্বিয়ানদের তিনটি শট রুখে দিয়ে লা আলবিসেলেস্তেদের জয়ের নায়ক এই অ্যাস্টন ভিলা গোলরক্ষক।

কোপার দ্বিতীয় সেমিফাইনালের ম্যাচটি নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষে ১-১ গোলে ড্র হওয়ার পর গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানে ৩-২ ব্যবধানে জিতে ফাইনাল নিশ্চিত করলেন লিওনেল মেসিরা। মারাকানায় শিরোপা লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে লাতিন ফুটবলের দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল।

বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল ৭টায় ব্রাজিলের এস্তাদিও ন্যাশিওনাল দি ব্রাসিলিয়ায় ম্যাচের শুরুতেই কলম্বিয়া শিবিরে ভয় ছড়িয়ে দেন লিওনেল মেসি। চতুর্থ মিনিটে দুর্দান্ত এক টানে প্রতিপক্ষের দুই ডিফেন্ডারদের ছিটকে ফেলে উঁচু করে ক্রস করেন লাউতারো মার্তিনেসের উদ্দেশ্যে। কিন্তু ইন্টার মিলান ফরোয়ার্ডের হেড গোলপোস্টের কাছাকাছি ছিল না।

তবে এই জুটি ঠিকই এগিয়ে দেন আর্জেন্টিনাকে। লো সেলসো থেকে বল পেয়ে আবারও মার্তিনেসকে দুর্দান্ত এক পাস দেন মেসি। এবার আর কোনো ভুল করেননি ইন্টার তারকা। কলম্বিয়ার গোলরক্ষক ডেভিড ওসপিনাকে পরাস্ত করে জাল খুঁজে নেন মার্তিনেস।

সেই সঙ্গে এই গোলে অ্যাসিস্ট করে একটি রেকর্ডও করেছেন মেসি। আসরে এখন পর্যন্ত আর্জেন্টাইন অধিনায়ক ৫ অ্যাসিস্টের পাশাপাশি করলেন ৪ গোল। কোপা আমেরিকার ইতিহাসে এত বেশি অ্যাসিস্ট নেই আর কারও।

পরের মিনিটে গোল শোধের সুযোগ পায় কলম্বিয়া। তবে কুয়াদ্রাদোর শক্তিশালী শট রুখে লা আলবিসেলেস্তেদের জাল অক্ষত রাখেন গোলরক্ষক মার্তিনেস।

৪৪তম মিনিটে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পায় কোচ লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা। তবে এবার বল সরাসরি গ্লাভস বন্দী করেন ওসপিনা। এই ব্যবধান ধরে রেখে প্রথমার্ধ শেষ করে আর্জেন্টিনা।

বিরতির পর সমতায় ফিরতে চেষ্টা চালায় কলম্বিয়া। সেই চেষ্টা বৃথা যায়নি তাদের। ৬১তম মিনিটে সমতায় ফিরে কলম্বিয়া। মাঝমাঠ থেকে বল পেয়ে ক্ষিপ্র গতিতে ছুটতে শুরু করেন লুইস দিয়াজ। ডি-বক্সের ভেতর রুখতে চেয়েও তার গতির সঙ্গে তাল মেলাতে পারেননি ডিফেন্ডার জার্মান পাজ্জেলা। দারুণ এক শটে গোলরক্ষক মার্তিনেসকে বোকা বানিয়ে কলম্বিয়াকে সমতায় ফেরান দিয়াজ।

ম্যাচে ফিরে দারুণভাবে আক্রমণ শুরু করে কলম্বিয়া। তবে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায় স্কালোনির দলও। ৭২তম মিনিটে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে দেওয়ার দারুণ সুযোগ হাতছাড়া করেন মার্তিনেস। মুনোজের কাছ থেকে বল পেয়ে ছুটে যান দি মারিয়া। তিনি আড়াআড়িভাবে বল পাঠান মার্তিনেসকে। কিন্তু গোলপোস্টের সামনে কেবল ‍ওসপিনা থাকা সত্ত্বেও তাড়াহুড়ার সঙ্গে শট নিয়ে সুযোগ মিস করেন ইন্টার তারকা।

৮১তম আবারও হতাশ হতে হয় আর্জেন্টিনাকে। দি মারিয়ার কাছ থেকে বল পেয়ে শট নেন ডি-বক্সের ভেতরে থাকা মেসি। কিন্তু ৩৪ বছর বয়সী তারকার শট ফিরে আসে কলম্বিয়ার গোলেপোস্টে লেগে। ৮৯তম মিনিটে ফ্রি-কিক পায় আকাশী-নীলরা। কিন্তু মেসির স্পট কিক লাগে প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের গায়ে। সেখান থেকে বল পেয়ে কাউন্টার-অ্যাটাক করে কলম্বিয়া। কিন্তু সফল হয়নি পাজ্জেলার বাধায়।

কোপার নতুন নিয়ম অনুযায়ী অতিরিক্ত ৩০ মিনিট না থাকায় ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। প্রথম শটে কলম্বিয়ার হয়ে গোল করেন কুয়াদ্রাদো ও আর্জেন্টিনার হয়ে মেসি। এরপর ডেভিনসন সানচেজের শট রুখে দেন মার্তিনেস। অন্যদিকে রদ্রিগো ডি পলের শট উড়ে যায় গোলপোস্টের উপর দিয়ে। ইয়েরি মিনার শটও রুখে দেন আর্জেন্টিনার মার্তিনেস। তবে গোল করে আলবিসেলেস্তেদের জয়ের সম্ভাবনা বাঁচিয়ে রাখেন পাজ্জেলা। কলম্বিয়ার হয়ে পরের গোলটি করেন বোরহা। আর্জেন্টিনর হয়ে লাউতারো মার্তিনেস। এরপর কার্দেনার নেওয়া শটটি মার্তিনেস রুখে দিলে ফাইনালে যাওয়ার আনন্দে মেতে উঠে আর্জেন্টিনা।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ...
© বাংলা বাহন সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০১৯-২০২১।
ডিজাইন ও আইটি সাপোর্ট: বাংলা বাহন