1. admin@banglabahon.com : Md. Sohel Reza :
শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০১:৪৭ পূর্বাহ্ন
আপনিও লিখুন:
‘বাংলা বাহন’ নিউজপোর্টালে আপনাদের মতামত, পরামর্শ, সমসাময়িক কোন বিষয়ে লেখা, বিশ্লেষণ, তথ্য, ছবি ও ভিডিও পাঠাতে পারেন banglabahonbd@gmail.com ঠিকানায়।

করোনাভাইরাস: নতুন আক্রান্ত নাকি নতুন শনাক্ত?

সজীব সরকার
  • প্রকাশ: সোমবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২০
ছবি: সজীব সরকার

নভেল করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট বর্তমান দুর্যোগ সম্পর্কে জনসাধারণ প্রতিদিনের তথ্য জানতে চায়। আর জনগণের তথ্যের এই চাহিদা মেটাতে রোগ সংক্রমণের ঝুঁকির মধ্যেও দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছেন সাংবাদিকরা। এজন্যে অবশ্যই তারা সাধুবাদ পাওয়ার দাবিদার। তবে এই খবর প্রচার বা প্রকাশের সময় আমাদের গণমাধ্যমগুলোর আরেকটু সতর্ক হওয়া দরকার।

মনে রাখতে হবে, বর্তমান পরিস্থিতি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। তাই জনজীবন বাঁচাতে মানুষকে সচেতন বা সতর্ক করা গণমাধ্যমের দায়িত্ব। আর জনগণকে সতর্ক করতে হলে প্রতিদিনের তথ্য দেওয়া চাই। কিন্তু এসব তথ্য এমনভাবে প্রচার বা প্রকাশ করা উচিত নয়, যাতে মানুষ সচেতন হওয়ার পরিবর্তে আতঙ্কগ্রস্ত হয়।

শুরু থেকেই লক্ষ্য করছি, গণমাধ্যমগুলো তথ্য উপস্থাপনে কিছু ভুল করছে। আবারো বলছি : তারা তথ্য ঠিক দিচ্ছে কিন্তু তথ্যের উপস্থাপন ভুল হচ্ছে। এ কারণে পাঠকের মধ্যে ভুল জানা ও বোঝার আশঙ্কা তৈরি হচ্ছে। যেমন : প্রতিদিন করোনাভাইরাসের আপডেট জানাতে বলা হচ্ছে, ‘দেশে নতুন করে অতো জন আক্রান্ত’; এখানে ভুলটি হচ্ছে, যে সংখ্যাটি এখানে বলা হচ্ছে, তা নতুন ‘আক্রান্তের’ নয়, নতুন ‘শনাক্তের’। কখনো বলা হচ্ছে, ‘আজ নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের চেয়ে কম’, আবার কখনো বলা হচ্ছে, ‘আজ দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত’; দুটো কথাই একই কারণে ভুল। বাস্তবতা হলো, যেদিন বেশি ব্যক্তির নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে, সেদিন বেশি শনাক্ত হচ্ছে আর যেদিন কম পরীক্ষা হচ্ছে, সেদিন কম শনাক্ত হচ্ছে। দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষার সক্ষমতা ও সংখ্যা ধীরে ধীরে বাড়ছে; ফলে স্বাভাবিকভাবেই আগামী দিনগুলোতে সংক্রমিতের বা শনাক্তের এই সংখ্যা স্বাভাবিক কারণেই বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। আর পুরো জনগোষ্ঠীর মধ্যে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা খুব বেশি না হলে বা নতুন সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের মধ্যে থাকলে নতুন শনাক্তের সংখ্যা ক্রমশ কমে আসবে।

মনে রাখা দরকার, ‘নতুন আক্রান্ত’ আর ‘নতুন শনাক্ত’- এ দুয়ের মধ্যে বিস্তর তফাৎ রয়েছে। ধরে নিচ্ছি, একটি এলাকার জনসংখ্যা মোট ১০০। এই ১০০ জনের সবার নমুনা পরীক্ষা করে মোট আক্রান্ত পাওয়া গেল ১০ জন আর বাকি ৯০ জন একেবারেই সুস্থ। এক সপ্তাহ পর ওই সুস্থ ৯০ জনের নমুনা আবারো পরীক্ষা করে ৫ জনের মধ্যে সংক্রমণ পাওয়া গেল; তাহলে ওই ৫ জন হবে ‘নতুন আক্রান্ত’ কেননা এই ৫ জন আগে আক্রান্ত ছিল না কিন্তু দ্বিতীয়বার পরীক্ষার পর তাদের মধ্যে সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এবার যদি ঘটনাটি একটু ভিন্ন উপায়ে দেখা যায় : ধরে নিচ্ছি, ওই ১০০ জনের মধ্যে ২০ জনকে পরীক্ষা করে ৫ জনের মধ্যে সংক্রমণ পাওয়া গেছে এবং বাকি ৮০ জনকে পরীক্ষাই করা হয়নি। পরদিন ওই ৮০ জনের মধ্যে আরও ৩০ জনের পরীক্ষা করে ১৫ জনের মধ্যে সংক্রমণ পাওয়া গেল। এখানে ওই ১৫ জনকে ‘নতুন করে আক্রান্ত’ বলা যাবে না, বলতে হবে ‘নতুন শনাক্ত’। একটি জনগোষ্ঠীর সবার নমুনা একই সময়ে পরীক্ষা না করে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে পরীক্ষা করে ‘নতুন করে আক্রান্ত’ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলা সম্ভব নয়। কেননা নিয়মিত ও একাধিক পরীক্ষা ছাড়া নিশ্চিত হওয়া সম্ভব নয় যে, একজন ব্যক্তি আগে থেকেই সংক্রমিত ছিল আর এখন প্রথম পরীক্ষার পর শনাক্ত হয়েছে, নাকি প্রথম পরীক্ষার পর সুস্থ ছিল কিন্তু পরে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে।

গণমাধ্যমকর্মীরা জনস্বার্থে ঝুঁকির মধ্যেও নিরলসভাবে কাজ করছেন, এজন্যে তাদের আবারো ধন্যবাদ। তবে তাদের কাছে প্রত্যাশা থাকবে, তথ্য প্রচার বা প্রকাশের আগে তথ্যের নির্ভুলতার পাশাপাশি তথ্য উপস্থাপনের যথার্থতার দিকেও তারা নজর দেবেন। সর্বোপরি, তথ্য এমনভাবে উপস্থাপন করা যাবে না যেন সচেতন হওয়ার পরিবর্তে পাঠক আতঙ্কিত হয়ে ওঠেন। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে কাগজে ছাপা পত্রিকা পাঠকের হাতে কম পৌঁছাচ্ছে। ফলে অনলাইন ও টেলিভিশনেই এখন মানুষ চোখ রাখছে বেশি। তাই বিশেষ করে টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর সতর্ক হওয়া দরকার, শব্দ-বাক্য চয়ন ও উপস্থাপন যেন মানুষকে আতঙ্কিত না করে।

রাষ্ট্র-গণমাধ্যম-জনগণ সবাই দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিলেই এ ধরনের দুর্যোগ সামাল দেওয়া সহজতর হবে।

লেখক: সহকারী অধ্যাপক ও চেয়ারপারসন, জার্নালিজম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগ, সেন্ট্রাল উইমেন্স ইউনিভার্সিটি।

ইমেইল : sajeeb_an@yahoo.com

সূত্র: সমকাল

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ...
© বাংলা বাহন সকল অধিকার সংরক্ষিত ২০২০-২০২১।
ডিজাইন ও আইটি সাপোর্ট: বাংলা বাহন